সরকারি আদেশে ঢাকায় ডেঙ্গু প্রতিরোধ সেলে সেবা করতে গিয়ে নিজেই ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন স্বাস্থ্য সহকারী তপন কুমার মণ্ডল (৩৫)

মাদারীপুর থেকে সরকারি আদেশে ঢাকায় ডেঙ্গু প্রতিরোধ করতে এসে নিজেই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন স্বাস্থ্য সহকারী তপন কুমার মণ্ডল (৩৫)। এ নিয়ে মাদারীপুরে ডেঙ্গু জ্বরে সাতজনের মৃত্যু হলো।

বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) বিকাল ৩টায় রাজধানীর বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তিনি মাদারীপুর সদর উপজেলায় স্বাস্থ্য সহকারী হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন।নিহত স্বাস্থ্য সহকারী তপন কুমার মণ্ডল মাদারীপুর সদর উপজেলার পেয়ারপুর ইউনিয়নের বড়াইলবাড়ি গ্রামের জদুনাথ মণ্ডলের ছেলে। তাকে ডেঙ্গু প্রতিরোধ সেলের সদস্য হিসেবে মাদারীপুর থেকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়েছিল।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, স্বাস্থ্য সহকারী তপন কুমার মণ্ডল ১৬ দিন পূর্বে মাদারীপুর থেকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৫৮ নম্বর ওয়ার্ডে ডেঙ্গু প্রতিরোধ সেলে কাজ শুরু করে। সেখানে দায়িত্বরত অবস্থায় সে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়। তপন ঈদের ছুটিতে বাড়িতে আসলে তাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। তখন তপনের দেহে প্লাটিলেটের পরিমাণ ছিল ৩০ হাজার।

কিন্তু সেখানে তার অবস্থার আরও অবনতি হলে রাজধানীর বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজে বুধবার (১৪ আগস্ট) আইসিইউতে থাকার পর বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় তিনি মারা যান।

মাদারীপুর সিভিল সার্জন মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, আমাদের সদরের একজন স্বাস্থ্য সহকারী সরকারি দায়িত্বে ঢাকার দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের একটি ওয়ার্ডের ডেঙ্গু প্রতিরোধ করার কাজে নিয়োজিত ছিলেন। সেখানে থাকা অবস্থায় তিনি ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হন। তিনি ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।






সম্পাদক ও প্রকাশকঃ জামাল হোসেন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মোঃ মোনাজ্জেল হোসেন খান
নির্বাহী সম্পাদক : নাঈম ইসলাম
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৭কে,মেহেরবা প্লাজা ৩৩ তোপাখানা রোড,ঢাকা
ফোনঃ 01947171171
মেইলঃdailyagomoni2018@gmail.com
প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।