ইভিএমে যে ভোট হয়েছে,এর চেয়ে স্বচ্ছ-ভালো ভোট বাংলাদেশের ইতিহাসে অতীতে কখনো হয়নিঃতথ্যমন্ত্রী

আগমনী ডেস্কঃবিএনপিকে গৎবাঁধা অভিযোগ ছেড়ে বাস্তবতা মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ। ইভিএমে যেভাবে ভোট হয়েছে, এর চেয়ে স্বচ্ছ–ভালো ভোট বাংলাদেশের ইতিহাসে অতীতে কখনো হয়নি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

গত বুধবার (০৫/০২/২০)জাতীয় প্রেসক্লাবে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিদের জরুরি চিকিৎসাদাতা বেসরকারি সংস্থা ট্রমা লিংকের পঞ্চম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন তথ্যমন্ত্রী। ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন বাতিল করার বিএনপির দাবির প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি বলব এই গৎবাঁধা কথাগুলো বাদ দিয়ে বাস্তবকে মেনে নেওয়ার জন্য।’ একই সঙ্গে তিনি ঐক্যফ্রন্টের কিছু নেতাও নির্বাচন নিয়ে ফতোয়া দেওয়া শুরু করেছেন, যা যথার্থ নয়। ইভিএম প্রতিটি দলের জন্য পোলিং এজেন্ট হিসেবে কাজ করে। এখানে কারও ফিঙ্গারপ্রিন্ট না মিললে ভোট দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই।’

‘বিএনপি লজ্জা ঢাকার চেষ্টা করছে’ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে ২৯ শতাংশ আর উত্তরে ২৫ শতাংশ ভোট পড়েছে। সেই ভোটের মধ্যে আমাদের প্রার্থীরা দ্বিগুণ ভোটে জয়লাভ করেছে। এখন এই লজ্জা ঢাকার জন্য তাদের নানা কথা বলতে হয়। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেবরা সেই কথাগুলোই বলছেন।’

বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দিকে তাকানোর জন্য বলে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রে ভোট দেওয়ার যোগ্য মানুষের মধ্যে ৬০ শতাংশ ভোটার হিসেবে নিবন্ধিত হয়, আর তার ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ ভোট পড়ে। অর্থাৎ মোট ভোট দেওয়ার যোগ্য মানুষের মধ্য থেকে ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ ভোট পড়ে।’

বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার কারাবাসের দুই বছর হওয়ায় তার মুক্তির দাবিতে বিএনপি আহুত সমাবেশ প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়া দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি। আদালত ছাড়া তাঁর মুক্তি দেওয়ার এখতিয়ার সরকারের নেই। তারা বারবার সরকারের কাছে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়ে আইন ও আদালতের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করেছেন। সমাবেশ তারা অতীতেও করেছে, আমরা দেখেছি খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে তারা সমাবেশ করতে গিয়ে হাঙ্গামা করেছে, মানুষের ওপর আক্রমণ করেছে, গাড়িঘোড়া ভাঙচুর করেছে।’

সমাবেশের অনুমতি মিলবে কি না—প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সমস্ত বিচার–বিশ্লেষণ করে অনুমতি দেবে কি না, সিদ্ধান্ত নেবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দেখবে তাদের উদ্দেশ্যটা কী, সমাবেশ করা, নাকি সমাবেশের নামে বিশৃঙ্খলা তৈরি করা।’

 







সম্পাদক ও প্রকাশকঃ জামাল হোসেন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মোঃ মোনাজ্জেল হোসেন খান
নির্বাহী সম্পাদক : নাঈম ইসলাম
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৭কে,মেহেরবা প্লাজা ৩৩ তোপাখানা রোড,ঢাকা
ফোনঃ 01947171171
মেইলঃdailyagomoni2018@gmail.com
প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।