বাবা দিবসে করোনা আক্রান্ত বাবাকে ডাস্টবিনে ফেলে গেছে সন্তানরা

আগমনী ডেস্কঃ খেয়ে না খেয়ে সন্তানদের কোলে পিঠে মানুষ করেন বাবা-মা। সন্তান বড় হলেও বটগাছের মতো ছায়া দেন জন্মদাতারা।কিন্তু সেই জন্মদাতার সঙ্গেই আজ বাবা দিবসেও নির্মম আচরণ করতে দেখা গেল।

শনিবার গভীর রাতে বাবা দিবসের শুরুতেই সামান্য শ্বাসকষ্ট থাকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বাবাকে ডাস্টবিনে ফেলে যায় সন্তানেরা।
পুলিশ জানায়, শনিবার রাতে নগরীর বাদুরতলা এলাকার ফয়জুন্নেসা স্কুলের সামনের ডাস্টবিনে এক বৃদ্ধ লোকের চিৎকার শুনে পথচারীরা জরুরি সেবা ৯৯৯ কল করেন। খবর পেয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই শাওন দাস এবং এএসআই খন্দকার শাহাব উদ্দিন ঘটনাস্থলে যান। পুলিশ দেখেই বৃদ্ধ খোরশেদ মিয়া তাকে বাঁচানোর আকুতি জানান। প্রচণ্ড শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন, তিনি জানিয়েছিলেন তার বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলায়।

আজ বিকালে ওই মৃত বৃদ্ধকে বেওয়ারিশ লাশ বলে দাফন করেছে আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলাম। বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন সংস্থাটির কুমিল্লা শাখার সহকারী পরিচালক সাজ্জাদ হোসেন। তিনি জানান, কুমিল্লা কোতোয়ালি থানার পুলিশের অনুরোধে পরিচয় শনাক্ত করতে না পারায় বৃদ্ধ খোরশেদ আলমকে বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হয়েছে।

করোনায় আক্রান্ত বলে নিজ সন্তানরাই তাকে ডাস্টবিনে ফেলে চলে গেছেন। এসময় পুলিশ বৃদ্ধকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কয়েক ঘণ্টা পরই তার মৃত্যু হয়। কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মো. আনোয়ারুল হক গণমাধ্যমকে জানান, বৃদ্ধ খোরশেদ মিয়া অস্পষ্ট স্বরে জানালেন তার বাড়ি লক্ষ্মীপুর এলাকায়। তবে আমরা তার সঠিক ঠিকানা খুঁজে পাইনি।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 







সম্পাদক ও প্রকাশকঃ জামাল হোসেন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মোঃ মোনাজ্জেল হোসেন খান
নির্বাহী সম্পাদক : নাঈম ইসলাম
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৭কে,মেহেরবা প্লাজা ৩৩ তোপাখানা রোড,ঢাকা
ফোনঃ 01947171171
মেইলঃdailyagomoni2018@gmail.com
প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।