চট্টগ্রাম বিভাগীয় পর্যায়ে উচ্চাঙ্গসঙ্গীতে ১ম স্থান অর্জন করে জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহন নিশ্চিত করেন রামুর মেয়ে  ইপ্সিতা 

মে ১৩ ২০২৪, ১৭:১৪

Spread the love

আনোয়ার হোসেন, বুরো প্রধান চট্টগ্রাম : জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ প্রতিযোগিতা ২০২৪ এর জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহনের সুযোগ পেয়েছে রামুর মেয়ে মেহরিন রাহাব্বাত ইপ্সিতা। মেহরিন রাহাব্বাত ইপ্সিতা ইতিপূর্বে কক্সবাজার জেলা পর্যায়ে এবং শনিবার, ১১ মে চট্টগ্রাম বিভাগীয় পর্যায়ে উচ্চাঙ্গসঙ্গীত এ অংশ নিয়ে ১ম স্থান অর্জন করে জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহন নিশ্চিত করেছে। ইপ্সিতা ইতিপূর্বে আরও চারবার সারা বাংলাদেশের মধ্যে সেরাদের সেরা হয়ে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছে এবং রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে থেকে স্বর্ণপদক অর্জন করেছিলো।

ইপ্সিতা রামু ক্যান্টনমেন্ট ইংলিশ স্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী। এ বিদ্যালয়ে প্রথম থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত ইপ্সিতা শ্রেণি পরীক্ষায় ১ম স্থান অর্জন করে আসছে। সৃজনশীল কর্মকান্ডের কারণে অল রাউন্ডার হিসেবে ইপ্সিতাকে বেষ্ট এ্যাওয়ার্ড প্রদান করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

মেধাবী ও সৃজনশীল ছাত্রী মেহরিন রাহাব্বাত ইপ্সিতার বাবা এডভোকেট মোজাফ্ফর আহমদ হেলালী কক্সবাজার জজ আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) এবং রামু উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি। মা ফাহমিদা আহমেদ ইতি গৃহিনী। বাবা-মা দুইজনই ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

ইপ্সিতার বড় বোন ঈষিকাও জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় সারাদেশের মধ্যে ১ম স্থান অধিকার করে স্বর্ণপদক অর্জন করেছিলো। ঈষিকা বর্তমানে ঢাকা নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে (অনার্স) অধ্যয়নরত আছে।

জানা গেছে- মেহরিন রাহাব্বাত ইপ্সিতা ওস্তাদ ফারুক আহমেদ এর কাছ থেকে তালিম নিয়েছে। এছাড়াও সে সুকুমার ললিতকলা একাডেমীর ছাত্রী।

মা ফাহমিদা আহমেদ ইতি জানান- ইপ্সিতা উচ্চাঙ্গসঙ্গীত বিষয়ে জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহন করতে যাচ্ছে। সে যেন চট্টগ্রাম বিভাগের মুখ উজ্জ্বল করতে পারে। এজন্য তিনি কক্সবাজার জেলাবাসির দোয়া কামনা করেছেন।

এই বিভাগের আরো খবর


আরো সংবাদ ... আরও