করোনাভাইরাস পানির মাধ্যমেও ছড়াতে পারে.‘নেচার’এ প্রকাশিত একটি গবেষণা প্রতিবেদন

আগমনী ডেস্কঃপ্সম্প্রতি ‘নেচার’ পত্রিকায় প্রকাশিত একটি গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস পানির মাধ্যমেও ছড়াতে পারে।  বলা হয়েছে, ময়লা বা অন্যের ব্যবহার করা পানিতে বেশ ভালো মতো বেঁচে থাকে কোভিড-১৯  ভাইরাসটি।

সুইডেন, নেদারল্যান্ডস ও আমেরিকার কিছু এলাকার পানির নমুনা নিয়ে গবেষণাটি পরিচালনা করা হয়। ফলাফলে জানানো হয়, প্রতিদিনের হাতমুখ ধোয়ার পর ব্যবহৃত পানি, শৌচকাজের পানিতে কোভিড-১৯ সংক্রমণের ভয় রয়েছে। নেদারল্যান্ডসের কেডব্লুআর ওয়াটার রিসার্চ ইনস্টিটিউটের পক্ষ থেকে এক গবেষক এসব বিষয়ে ব্যাখ্যা দেন।

ভারতের ইমিউনোলজি বিভাগের বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. শুভজিৎ বিশ্বাসও জানিয়েছেন, ব্যবহার করা পানির মাধ্যমে কোভিড-১৯ সংক্রমিত হতে পারে। ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় গোষ্ঠী সংক্রমণের সম্ভাবনাও আছে। করোনা সংক্রমিত মানুষের মল থেকেও ছড়াতে পারে এই রোগটি।

তিনি আরও জানান, জ্বর-সর্দি-গলাব্যথার সঙ্গে পেটখারাপও কিন্তু একটা বড় লক্ষণ কভিড সংক্রমণের।এমন পরিস্থিতিতে ভারতের খ্যাতনামা প্রবীণ ভাইরোলজিস্ট ডা. অমিতাভ নন্দী পরামর্শ দিলেন, নিজের সঙ্গে সঙ্গে বাড়ির আশপাশটা পরিষ্কার রাখার এবং ব্যবহৃত পানি জমতে না দেওয়া।

মলেথাকতে পারে কোভিড-১৯। তাই শৌচকর্মের পর হাত জীবাণুনাশক লিকুইড সোপ দিয়ে পরিষ্কার করুন। তা না হলে জামাকাপড় বা বসার জায়গা থেকেও কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ ঘটতে পারে।

এর আগে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাসহ আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো জানায়, করোনাভাইরাস মূলত বাতাসবাহিত। হাঁচির সঙ্গে বের হওয়া ড্রপলেটসের মাধ্যমে তা খুব দ্রুত ছড়ায়। এছাড়াও ড্রপলেটস বাতাসে ভেসে থাকে বেশ কিছুক্ষণ এবং তা মাটিতে পড়ে। মাটিতে থাকা ভাইরাসটি জীবাণু জুতার সঙ্গে ঘরে গিয়ে পৌঁছায়।







সম্পাদক ও প্রকাশকঃ জামাল হোসেন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মোঃ মোনাজ্জেল হোসেন খান
নির্বাহী সম্পাদক : নাঈম ইসলাম
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৭কে,মেহেরবা প্লাজা ৩৩ তোপাখানা রোড,ঢাকা
ফোনঃ 01947171171
মেইলঃdailyagomoni2018@gmail.com
প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।